• English
  • বাংলা
Online Exam

Practice makes a man perfect. Besides study, practice is essential in MCQ examinations. Removing suspicion practice brings desired result. Tha...

Questions

There is no alternative of proper preparation in present exam system to make good result. For this, it needs subjective guideline and assuranc...

Model Test

Model Test is very important for each of the students. Naturally, we cannot keep everything in mind, so after reading any subject one needs to...

eBook

Many things are changing with the passage of time. By a little device in fist one can read thousands of books. Al Fatah Publications is going ...

Newly Released Books

Academic Books

Practice Books

References Books

Creative Religious Books

Achievement & Award

Sister Concern

Latest News & Events

  • March 27, 2021
বাপুসের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির পরিচালক এম. এ. সাঈদ

বাংলাদেশ পুস্তক প্রকাশক ও বিক্রেতা সমিতি’র (বাপুস) কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটি-২০২১-২০২৩ সেশনের পরিচালক নির্বাচিত হওয়ায় আল ফাতাহ গ্রুপের সম্মানিত ব্যবস্থাপনা পরিচালক জনাব এম. এ. সাঈদ স্যার কে ফুলেল শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন আল ফাতাহ গ্রুপের কর্মকর্তাবৃন্দ।

  • March 14, 2021
আল ফাতাহ মাঠ কর্মীদের প্রশিক্ষণ কর্মশালা

  ‘আলোকিত মানুষের লক্ষ্যে শিক্ষার্থীদের কল্যাণে’ প্রতিপাদ্য নিয়ে এগিয়ে চলা দেশের শীর্ষ প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান আল ফাতাহ পাবলিকেশন্স মার্কেটিং বিভাগের মাঠ কর্মীদের নিয়ে বিশেষ প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। রাজধানীর মালিবাগস্থ জিনিক্স গার্ডেনের নিজস্ব কনফারেন্স হলে এ…

Latest Notice

  • ৬৫ বছরের বেশি বয়সীরাও এখন থেকে হজে যেতে পারবেন বলে জানিয়েছেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান। মঙ্গলবার দুপুরে নেত্রকোণায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে এক সংলাপ অনুষ্ঠানে এ তথ্য জানান ধর্ম প্রতিমন্ত্রী।

    ফরিদুল হক খান বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে ৬৫ বছরের বেশি বয়সী ব্যক্তিদেরও হজ পালনের সুযোগ করে দিচ্ছেন। করোনা মহামারির কারণে দুই বছর পবিত্র হজ পালন করা সম্ভব হয়নি। চলতি বছরে আমরা হজ পালন করতে পেরেছি। এখন থেকে সবকিছু সহজ হবে।

    তিনি খান বলেন, গত ১৪ বছরে শেখ হাসিনা সরকার সবকিছুতে উন্নয়ন করছে। শুধু ইসলাম ধর্মই নয়, পাশাপাশি বৌদ্ধধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের আমানত ৪ কোটি থেকে সাত কোটি টাকায় বৃদ্ধি করা হয়েছে। বৌদ্ধবিহার, প্যাগোডা নির্মাণ ও সংস্কারে ২ কোটি ৫৭ লাখ টাকা, অসচ্ছল ভিক্ষু ব্যক্তিদের চিকিৎসায় প্রায় ৩৮ লাখ টাকার অনুদান, ২ হাজার ৪ বৌদ্ধবিহারে ৭ কোটি ৮৫ লাখ, বৌদ্ধবিহার ও শ্মশান উন্নয়নে ৪ কোটি ২৮ লাখ টাকা প্রদান করা হয়েছে। এছাড়া হিন্দুধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের স্থায়ী মূলধন ২১ কোটি থেকে ১০০ কোটি টাকায় উন্নীত করা হয়েছে।

    জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশের সভাপতিত্বে ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মনির হোসেনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন- সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি হাবিবা রহমান খান, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অসিত সরকার, পুলিশ সুপার মো. ফয়েজ আহমেদ, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. আমিরুল ইসলাম, পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি জ্ঞানেশ সরকার, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি সীতাংশু বিকাশ আচার্য প্রমুখ।

  • আগামী শিক্ষাবর্ষ থেকে তিনটি শ্রেণিতে চালু হচ্ছে নতুন শিক্ষাক্রম। পর্যায়ক্রমে অন্যান্য শ্রেণিতেও তা বাস্তবায়ন করা হবে। যেখানে প্রথাগত পরীক্ষাকে কম গুরুত্ব দিয়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানেই ধারাবাহিক মূল্যায়নের ওপর গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। করোনার পাশাপাশি নতুন এ শিক্ষাক্রমের বিষয়টি মাথায় রেখে এ বছরসহ তিন বছর ধরে পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা নেওয়া হয়নি। আগামী দিনেও আর এ পরীক্ষা হচ্ছে না বলেই জানিয়ে আসছিলেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নীতিনির্ধারকেরা। কিন্তু বছরের শেষ বেলায় এসে অনেকটা আকস্মিকভাবে এ বছর প্রাথমিক বৃত্তি পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।

    প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের একজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তা প্রথম আলোকে এ বছর প্রাথমিক বৃত্তি পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন। সম্প্রতি এক আন্তমন্ত্রণালয় সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়েছে। চলতি মাসের শেষ সপ্তাহে এ বৃত্তি নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। তবে এ পরীক্ষা সব শিক্ষার্থী দিতে পারবে না। বিদ্যালয়ের বাছাই করা ১০ শতাংশ শিক্ষার্থী এ পরীক্ষা দিতে পারবে।

    পরীক্ষা হবে উপজেলা সদরে

    রাজধানীর একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একজন প্রধান শিক্ষক প্রথম আলোকে জানান, এ বিষয়ে তাঁরা থানা শিক্ষা কর্মকর্তাদের মাধ্যমে একটি নির্দেশনা পেয়েছেন।

    জানা গেছে, ওই নির্দেশনাপত্র জারি করেছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর। এতে বলা হয়েছে, ২৮ নভেম্বর এক আন্তমন্ত্রণালয় সভায় বর্তমানে প্রচলিত পদ্ধতিতে প্রাথমিক বৃত্তি অব্যাহত থাকবে বলে সিদ্ধান্ত হয়েছে। চলতি মাসের শেষ সপ্তাহে এ বৃত্তি পরীক্ষা নিতে হবে। প্রতিটি উপজেলা সদরে হবে এ পরীক্ষা। এ জন্য মোট শিক্ষার্থীর ১০ শতাংশ হিসাব করে কেন্দ্রের সংখ্যা নির্ধারণ করে ৬ ডিসেম্বরের মধ্যে তথ্য পাঠাতে জেলা শিক্ষা কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

    জানা গেছে, এত দিন প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার ভিত্তিতে প্রাথমিক বৃত্তি দেওয়া হতো। যেহেতু সমাপনী পরীক্ষা বাদ দেওয়া হয়েছে, তাই বিকল্প হিসেবে পুরোনো পদ্ধতির মতো করে বৃত্তি পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

    তবে শিক্ষা–সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা বলছেন, আকস্মিক এ সিদ্ধান্তে বৈষম্য সৃষ্টি হবে। কারণ, প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার মাধ্যমে সব শিক্ষার্থী অন্তত সুযোগটি পেত। এখন ১০ শতাংশ শিক্ষার্থী এ সুযোগ পাবে। এতে বিদ্যালয়গুলোর নজর থাকবে অনেকটা এই ১০ শতাংশ শিক্ষার্থীর ওপর। ফলে অন্যরা আরও পিছিয়ে পড়বে। এ ছাড়া আগে থেকে ঘোষণা না দেওয়ায় প্রস্তুতির অভাবে অনেকে সুযোগবঞ্চিত হবে এবং শিক্ষার্থীদের ওপর চাপ পড়বে। সাধারণত পরীক্ষাসংক্রান্ত বড় কোনো সিদ্ধান্ত হলে আগেভাগেই জানানো হয়। কিন্তু এ ক্ষেত্রে তা করা হয়নি।

  • চলতি বছর সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ২০২৩ শিক্ষাবর্ষে প্রথম থেকে নবম শ্রেণি পর্যন্ত ডিজিটাল লটারির মাধ্যমে শিক্ষার্থী নির্বাচন অনুষ্ঠানের তারিখ পরিবর্তন করা হয়েছে। তবে বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে (মহানগরী ও জেলা সদরের সদর উপজেলা পর্যায়ে) ডিজিটাল লটারির মাধ্যমে শিক্ষার্থী নির্বাচন অনুষ্ঠানের তারিখ পরিবর্তন করা হয়নি। আগের নির্ধারিত তারিখেই এই লটারি অনুষ্ঠিত হবে।

    মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের ওয়েবসাইটে দেওয়া পরিচালক (মাধ্যমিক) ও ঢাকা মহানগরী সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় ভর্তি কমিটির সদস্যসচিব মোহাম্মদ আজিজ উদ্দিন স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে ডিজিটাল লটারি অনুষ্ঠানের নতুন সূচি প্রকাশ করা হয়েছে।

    বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ডিজিটাল লটারি ১২ ডিসেম্বর বেলা দুইটায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে অনুষ্ঠিত হবে। আর বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের (মহানগরী ও জেলা সদরের সদর উপজেলা পর্যায়ে) ডিজিটাল লটারি ১৩ ডিসেম্বর বেলা তিনটায় একই ইনস্টিটিউটে অনুষ্ঠিত হবে।

    সরকারি বিদ্যালয়ে ভর্তির জন্য আবেদন নেওয়া শুরু হয় ১৬ নভেম্বর, চলবে ৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত। এর আগে বলা হয়েছিল, কেন্দ্রীয় পর্যায়ে অনুষ্ঠিত হবে ডিজিটাল লটারি। ১০ ডিসেম্বর সরকারি বিদ্যালয়ের অনলাইন লটারি অনুষ্ঠিত হবে আর ২৮ ডিসেম্বরের মধ্যে ভর্তির কাজ শেষ করতে হবে। এবার অনলাইন লটারির এই তারিখ পরিবর্তন করে ১২ ডিসেম্বর করা হলো।

    সরকারি বিদ্যালয়ের মতো বেসরকারি বিদ্যালয়গুলোতে ১৬ নভেম্বর থেকে ৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত আবেদন করা যাবে। এগুলোতে ভর্তির জন্য শিক্ষার্থী বাছাইয়ে ডিজিটাল লটারি অনুষ্ঠানের নির্ধারিত তারিখ ১৩ ডিসেম্বর।

  • সর্বশেষ এমপিও নীতিমালা ও জনবল কাঠামো (মাদরাসা) অনুযায়ী সরকারি বিধি মোতাবেক রশিদাবাদ মোহাম্মদিয়া সুন্নিয়া দাখিল মাদরাসায় নিয়োগ দেয়া হবে।

    (১) সহকারী সুপারিনটেনডেন্ট- ১ জন যোগ্যতা- বাংলাদেশ মাদরাসা বোর্ড বা ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়/ ইসলামী আরবী বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত মাদরাসাসমূহ হতে কামিল ডিগ্রি অথবা ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় হতে আল-কুরআন অথবা ইসলামিক স্টাডিজ, দাওয়াহ অথবা ইসলামিক স্টাডিজ, আল ফিকাহ অথবা লিগ্যাল স্টাডিজ বিষয়ে অনার্স (সম্মান) ডিগ্রি অথবা কোন স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় হতে আরবী বিষয়ে অনার্স (সম্মান) ডিগ্রি। সর্বশেষ ডিগ্রি ব্যাতীত শিক্ষা জীবনের অন্যান্য স্তরে যে কোন ১টি ৩য় শ্রেণী বা সমমান গ্রহণযোগ্য।

    অভিজ্ঞতা-সহকারী মৌলভী হিসেবে ১০ বছরের শিক্ষকতার অভিজ্ঞতা অথবা ইবতেদায়ী প্রধান পদে ১৫ বছরের অভিজ্ঞতা। (২) নিরাপত্তা কর্মী ও নৈশপ্রহরী ১জন করে জেডিসি/সমমান পাস সভাপতি বরাবর ছবি ও সনদসহ ।

    অনূর্ধ্ব-৩৫ বছর।

    আবেদনের শেষ তারিখ ২২/১২/২০২২ইং

    যোগযোগ: – সভাপতি , মাও: মুহাম্মদ মুজাম্মেলুল হক, সুপার ও সচিব, রশিদাবাদ মোহাম্মদিয়া সুন্নিয়া দাখিল মাদরাসা, শোভনদন্ডী, পটিয়া, চট্টগ্রাম।

    মোবাইল: 01815504305।

  • বিভিন্ন কলেজ-মাদরাসায় একাদশ শ্রেণিতে নতুন শিক্ষার্থী ভর্তির নীতিমালা প্রকাশ করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। আজ বৃহস্পতিবার (৮ ডিসেম্বর) থেকে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন শুরু হচ্ছে। আগামী ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত ভর্তির আবেদন করতে পারবেন শিক্ষার্থীরা। ৩১ ডিসেম্বর প্রথম পর্যায়ের নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের ফল প্রকাশ করা হবে। এবারও তিন দফায় আবেদন গ্রহণ করে একাদশে ভর্তির জন্য শিক্ষার্থী নির্বাচন করা হবে। অনলাইন ছাড়া সাধারণ শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ম্যানুয়ালি ভর্তির আবেদন নেয়া হবে না। আগামী ২২ থেকে ২৬ জানুয়ারি একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি প্রক্রিয়া চলবে। ১ ফেব্রুয়ারি একাদশে ক্লাস শুরু করবেন সদ্য এসএসসি ও সমমান উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা। বুধবার এসব তথ্য জানিয়ে একাদশে ভর্তির নীতিমালা জারি করা হয়েছে।

    অনলাইনে আবেদন :

    জানা গেছে, চলতি বছর অনলাইনে নির্ধারিত ওয়েবসাইটে (www.xiclassadmission.gov.bd) একাদশ শ্রেণির ভর্তির আবেদন করতে পারবেন। অনলাইন ছাড়া সাধারণ শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ম্যানুয়ালি ভর্তির আবেদন নেয়া হবে না। শিক্ষার্থীদের আবেদন ফি নির্ধারণ করা হয়েছে ১৫০ টাকা। ১৫০ টাকা আবেদন ফি দিয়ে সর্বনিম্ন পাঁচটি এবং সর্বোচ্চ দশটি কলেজে পছন্দ দিতে হবে। একজন শিক্ষার্থী যতগুলো কলেজে আবেদন করবে তার মধ্য থেকে তার মেধা, কোটা ও পছন্দক্রমের ভিত্তিতে একটি মাত্র কলেজে তার অবস্থান নির্ধারণ করা হবে। নির্বাচিত শিক্ষার্থী ৩২৮ টাকা দিয়ে ভর্তির প্রাথমিক নিশ্চায়ন করতে হবে।

407

Books

4381236

Visits

480352

Visitors